জ্যামিতিক ভিত্তিতে চ্যুতির শ্রেণীবিভাগ কর।

জ্যামিতিক ভিত্তিতে চ্যুতির শ্রেণীবিভাগ এই লেখাটিতে আলোচনা করা হল। দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য এটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। আশা করি এটি তোমাদের পরীক্ষার প্রস্তুতিতে সহায়তা করবে। তোমরা নিজেরা মনোযোগ সহকারে পড়ো এবং প্রশ্নগুলো তোমাদের বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করো।

A. মোট সরণ বা স্খলনের ভিত্তিতে:

1. আয়াম স্খলন চ্যুতি:

যে চ্যুতির ক্ষেত্রে মোট সরণ চ্যুতি তলের আয়ামের সঙ্গে সমান্তরালে হয়, তাকে আয়াম স্খলন বলে।

ভঙ্গির ভিত্তিতে আয়াম দুই প্রকার। যথা –

  • ডানহাতি আয়াম স্খলন চ্যুতি বা ডেক্সস্ট্র্যাল।
  • বামহাতি আয়াম স্খলন চ্যুতি বা সিনিস্ট্র্যাল।

2. নতি স্খলন চ্যুতি:

যে চ্যুতিতে স্খলন শিলা স্তরের নতির দিকে হয়, তাকে নতি স্খলন চ্যুতি বলে।

3. তির্যক স্খলন চ্যুতি:

চ্যুতি তলের উপরে শিলাস্তূপের স্খলন যখন চ্যুতিনতি ও আয়ামের উভয়দিকে মধ্যবর্তী কোন তৈরি হয় তাকে তির্যক স্খলন চ্যুতি বলে।

B. চ্যুতিতলের আয়ামের সাথে সন্নিহিত শিলাস্তরের আয়ামের সম্পর্কের ভিত্তিতে:

1. আয়াম চ্যুতি:

যে চ্যুতিতে চ্যুতি তলের আয়াম সন্নিহিত শিলাস্তরের আয়ামের সমান্তরালে অবস্থান করে তাকে আয়াম চ্যুতি বলে।

2. তির্যক চ্যুতি:

যে চ্যুতিতে চ্যুতি তলের আয়াম সন্নিহিত শিলা স্তরগুলি আয়ামের সাথে সূক্ষ্মকোণে অবস্থান করে তাকে তির্যক চ্যুতি বলে।

3. নতি চ্যুতি:

যে চ্যুতিতে চ্যুতি তলের আয়াম সন্নিহিত শিলা স্তরগুলি নতির সমান্তরালে অবস্থান করে তাকে নতি চ্যুতি বলে।

4. স্তর চ্যুতি:

যে চ্যুতিতে চ্যুতিতল স্তরায়ন তলের সমান্তরালে থাকে তাকে স্তর চ্যুতি বলে।

5. অনুদৈর্ঘ্য চ্যুতি:

আঞ্চলিক গঠনের সমান্তরালে চ্যুতি সম্পন্ন হলে, তাকে অনুদৈর্ঘ্য চ্যুতি বলে।

6. প্রস্থ চ্যুতি:

আঞ্চলিক গঠনের আড়াআড়ি দিকে চ্যুতি সম্পন্ন হলে তাকে প্রস্থ চ্যুতি বলে।

C. চ্যুতি গোষ্ঠীর নকশার ভিত্তিতে:

কোনো কোনো অঞ্চলে একই নতি ও আয়াম সম্পন্ন কতগুলি চ্যুতি সৃষ্টি হয়, এরকম চ্যুতি গোষ্ঠীকে সমান্তরাল চ্যুতি বলে।

1. আনেশেঁলো চ্যুতি:

যে চ্যুতি গোষ্ঠীতে চ্যুতি গুলি সমান্তরাল চ্যুতির মতো হয় কিন্তু সামগ্ৰীকভাবে পরস্পর মুখোমুখি পা থেকে শুধুমাত্র প্রান্ত অংশে মুক্ত থাকে, তাকে আনেশেঁলো বলে।

2. পরিধি চ্যুতি:

যে চ্যুতি গোষ্ঠীতে চ্যুতি রেখাগুলি বৃত্তচাপীয় এবং সাধারণত সমগোত্রীয় হয়, তাকে পরিধি চ্যুতি বলে।

3. অরীয় চ্যুতি:

যে চ্যুতিতে চ্যুতিরেখাগুলি এককেন্দ্রীয় অঞ্চলের দিকে অভিসারী হয় তাকে অরীয় চ্যুতি বলে।

4. ধাপ চ্যুতি:

একাধিক সমান্তরাল চ্যুতি পরপর অবস্থান করলে এবং শিলা স্তরগুলি ধাপে ধাপে নিম্নে স্খলিত হলে তাকে ধাপ চ্যুতি বলে।

D. চ্যুতিতলের নতির ভিত্তিতে:

1. উচ্চনতি চ্যুতি:

চ্যুতি তলের নতির মান 45° এর বেশি হলে তাকে উচ্চনতি চ্যুতি বলে।

2. নিম্ননতি চ্যুতি:

চ্যুতি তলের নতির মান 45° এর কম হলে তাকে নিম্ননতি চ্যুতি বলে।

FAQ/বহুচর্চিত প্রশ্নাবলী

ক্লিপে কী?

সংঘট্ট চ্যুতি যুক্ত অঞ্চলে সুদীর্ঘকাল ব্যাপি ক্ষয়কার্যের ফলে ন্যাপের যে অংশ মূল অংশ থেকে অপসারিত হয়ে ভিন্নযুগের শিলায় অবস্থান করে সেই অংশকে ক্লিপে বলে।
যেমন – হিমালয়ের সিমলা ক্লিপের উপর অবস্থিত সিমলা।

উইন্ডো বা ফেনস্টার কী?

ন্যাপের প্রাচীন শিলা নদীর ক্ষয়কার্যের দ্বারা অপসারিত হলে তার নীচে অবস্থিত নবীন শিলার বহিঃপ্রকাশ ঘটে এর ফলে যে ভূমিরূপের সৃষ্টি হয় তাকে উইন্ডো বা ফেনস্টার বলে।
যেমন – শতদ্রু নদীর দ্বারা উন্মুক্ত পশ্চিম হিমালয়ের সানি উইন্ডো।

নমস্কার , আমরা দেবলীনা ও শুভদীপ । আমি ওয়েবসাইটের লেখক, আমি ভূগোলে স্নাতক করেছি। আমার উদ্দেশ্য শিক্ষক এবং ছাত্র উভয়ের জন্য ভূগোলের গুণমান নোট এবং উপাদান শেয়ার করা এবং আমার দিক থেকে সর্বোপরি সাথে থাকা।

Leave a Comment

error: Content is protected !!